সোনার ভেবে কাঁটার মুকুট মাথায় গলালেন মৃদুল দা ?


অবশেষে পদ্মাপাড়ের হটসীটে আবার একজন বাঙালি, বৃটিশ প্রভুভক্তি ছেড়ে একজন সফল বাঙ্গালিকে কোচের দায়িত্ব দেবার জন্যে অবশ্যই ধন্যবাদ প্রাপ্য ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের আর এই ঘটনা সম্ভব হয়েছে আমাদের মোহনবাগানের পদাঙ্ক অনুসরণ করে একটা টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করবার ফলেই, নাহলে সেই অ্যালভিটো লবির গোয়ানিজ আর্মান্দো কোলাসোর ভাগ্যেই ফের শিকে ছিঁড়েছিল এবং এবেলাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছিলাম স্বয়ং আর্মান্দোও নাকি যথেষ্ট লালায়িত ছিলেন লাল হলুদ কোচ হবার জন্যে। কিন্তু পড়ে আর্মান্দো আমাদের সরাসরি ফোনে জানান "পাগল নাকি? কে যাবে থুতু খেতে ওই কেলাবে? হারলেই তো থুতু দেবে অসভ্য গুলো"

যাইহোক  আর্মান্দো কোলাসো, এলকো সাত্তরি, বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য, ট্রেভর জেমস মরগ্যান অপমানিত হয়ে থুতু এবং লাথ খেয়ে কাঁদতে কাঁদতে যে কাঁটার মুকুট ছেড়ে প্রানের ভয়ে পালিয়েছেন সেই মুকুট এখন আপনার মাথায় মৃদুলদা, আপনাকে অভিনন্দন জানাতে খুব ইচ্ছে করছে দাদা, ময়দানের বড় ক্লাবে ফের কোচিং করানোর সুযোগ এসেছে আপনার সামনে আর সেটা এসেছে শুধু আপনার পরিশ্রম প্যাশন আর ডেডিকেশনের জন্যই, ইষ্ট বেঙ্গল ক্লাব যোগ্য বেক্তিই বেছেছেন এই বিশয়ে কোন সন্দেহ নেই, কিন্তু আপনি?

দাদা আপনি কি আপনার যোগ্য ক্লাব পেলেন? ভয় লাগছে দাদা, ভীষণ ভয় লাগছে, একবার ভেবে দেখুন যে ক্লাবের শীর্ষকর্তা লবিবাজি করতে গিয়ে ক্লাব যখন আই লিগের আসরে শীর্ষস্থানে তখন সাংবাদিকদের সামনে একটা ড্র করবার অপরাধে ঘোষণা করেন এই টীম টুর্নামেন্ট জিততে পারবে না, মরগ্যানের মতন হাই প্রোফাইল কোচকে বাপ বাপান্ত করতে ছাড়েন না, সেখানে আপনার মতো একজন ভালোমানুষের কি দশা হতে পারে একবার ভেবে দেখবেন দাদা

আবার ভাবুন  যে ক্লাবের দায়িত্ব আপনি নিলেন সেই ক্লাবের সমর্থকরা এখন থেকেই বলতে শুরু করেছে "আর্মান্দোর বদলে মোহামেডানের বাতিল কোচ? দাঁড়া দেখাচ্ছি মজা", মরগ্যানকে থুতু দিয়ে বিদায় জানিয়েছে আপনার কি দশা হবে ভেবেই ব্লাডপ্রেশার বেড়ে যাচ্ছে দাদা 

যে মুকুটটা সোনার ভেবে আপনি মাথায় নিলেন সেটা কতোটা কণ্টকময় পড়বার আগে ভাবতে পারতেন মৃদুলদা

Share on Google Plus

About Pradip Hazra

This is a short description in the author block about the author. You edit it by entering text in the "Biographical Info" field in the user admin panel.

4 comments :